শাহরাস্তি

শাহরাস্তিতে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণ॥ আটক-২

মো. জামাল হোসেন॥
চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে ২জনকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে শাহরাস্তি থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে। বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী মেয়েটি শাহরাস্তি উপজেলার মেহের উত্তর ইউনিয়নের জমির হোসেনের মেয়ে।

বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী (২০) এর মা ফেরদৌস বেগম সাংবাদিকদের জানায়, আমার মেয়ে সেহরী খাওয়ার পর ভোরে বাড়ীর আঙ্গিনায় আমকুড়াচ্ছিল। ফজর নামাজের পরে তাকে না পেয়ে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করা হয়।

ফজর নামাজ শেষে মসজিদের মুসল্লিরা বাড়ী যাওয়ার পথে আমুজান এলাকার বাগান বাড়ীতে একটি মেয়েকে কাঁদতে দেখে পাশে দাঁড়িয়ে থাকা যুবককে আটক করে। পরে মেয়ের পরণের কাপড় খোলা দেখে ধর্ষক জিহাদ (১৮)কে গণধোলাই দেয়। জিহাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বাগানের ভেতর থেকে সিএনজি চালক ফাহিম (২০)কে আটক করা হয়।

আটককৃতদের গণধোলাই দিয়ে কালিয়াপাড়ায় এনে শাহরাস্তি থানায় খবর দেয়া হয়। শাহরাস্তি থানার এসআই আবদুল আউয়াল ২ ধর্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

আটক জিহাদ কচুয়া উপজেলার চন্দিয়াপাড়া গ্রামের মোল্লা বাড়ীর মৃত ইব্রাহীম মোল্লার ছেলে এবং ফাহিম (২০) একই উপজেলার আমুজান গ্রামের মৃত জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে। ফাহিম পেশায় সিএনজি চালক।

আটক জিহাদ জানায়, ফাহিম মেয়েকে আম কুড়াতে দেখে আমাকে বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে মেয়েটিকে মুখে কাপড় বেঁধে সিএনজিতে করে কচুয়া উপজেলার আমুজান বাগানে নিয়ে যাওয়া হয়।

শাহরস্তি থানার ওসি মো. শাহ আলম (এলএলবি) জানান, এ ঘটনায় শাহরাস্তি থানায় মেয়ের মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। আটক ২ ধর্ষককে কোর্টে প্রেরণ করা হবে। ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য চাঁদপুর প্রেরণ করা হবে।

Sharing is caring!

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
shares
Close