আন্তর্জাতিকবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

চীনের হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের কারণে আতঙ্ক যুক্তরাষ্ট্রের

অনলাইন ডেস্ক:

হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র তৈরিতে এগিয়ে রয়েছে চীন। এমন ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির ফলে আতঙ্কে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এক প্রতিবেদনের জানা গেছে, শীর্ষস্থানীয় মার্কিন কর্মকর্তারা দুই দেশের সামরিক অস্ত্র সক্ষমতা নিয়ে এমনটাই ধারণা করছেন।খবর রয়টার্সের।

হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র ঘণ্টায় শব্দের চেয়ে পাঁচগুণেরও বেশি গতিতে অর্থাৎ প্রায় ৬ হাজার ২০০ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে পারে। গতি, উচ্চতা এবং ছুটে চলার সময়ে গতিপথ পরিবর্তনের সক্ষমতা রয়েছে এসব ক্ষেপণাস্ত্রে। ফলে এর অবস্থান নির্ণয় এবং তা প্রতিরোধ করাও কষ্টসাধ্য।

পশ্চিমা অস্ত্র গবেষকরা ধারণা করেছেন, এসব ক্ষেপণাস্ত্রের কোনোটি ঘণ্টায় ২৫ হাজার কিলোমিটার গতিতে ছুটতে পারে। অর্থাৎ এর গতি হবে আধুনিক যাত্রীবাহী জেট বিমানের চেয়ে ২৫ গুণ বেশি।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে মার্কিন কমান্ডের সাবেক প্রধান অ্যাডমিরাল হ্যারি হ্যারিস গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে বলেন, অত্যাধুনিক প্রযুক্তির যেসব ক্ষেত্রে চীন যুক্তরাষ্ট্রকে পেছনে ফেলে দিতে শুরু করেছে তার একটি হাইপারসনিক অস্ত্র।

তিনি মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের সশস্ত্র কমিটিতে দেয়া বক্তব্যে তার এমন ধারণার কথা জানান। তিনি বলেন, এশিয়া এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে মার্কিন আধিপত্য বিস্তারকেও পেছনে ফেলে দিচ্ছে চীন।

চীন ইতিমধ্যে হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে কিংবা করার পর্যায়ে রয়েছে। গত এপ্রিলে মার্কিন প্রতিরক্ষা গবেষণা এবং প্রকৌশল বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি মাইকেল গ্রিফিন এমন কথা বলেছেন।

এদিকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন মে মাসে এক মহড়ায় হাইপারসনিক অস্ত্র প্রদর্শন করে। এ সময় তিনি এ ক্ষেপণাস্ত্রকে অজেয় বলে মন্তব্য করেছিলেন।

Sharing is caring!

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
shares
Close