নতুনেরডাক নিউজ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক

বাংলাদেশ, পাকিস্তান, আফগানিস্তান থেকে চলে যাওয়া নির্যাতিত সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দেয়ার প্রস্তাব সংক্রান্ত আইন সংশোধনে একটি বিল মঙ্গলবার ভারতের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভায় পাস হয়েছে।

(বুধবার) রাজ্যসভায় আইনটি পাস হয়ে গেলে বাংলাদেশ থেকে যেসব হিন্দু ২০১৪ সাল পর্যন্ত মূলত আসাম এবং উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলোতে চলে গিয়েছিল, তারা ভারতের নাগরিকত্ব পাওয়ার অধিকারী হবেন।

নাগরিকত্ব বিলকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে উঠেছে আসাম। আসাম গণপরিষদ, অল আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়নসহ (আসু) প্রায় সব গণসংগঠন এই বিলের বিরোধিতায় একাট্টা। মঙ্গলবার আসাম বন্‌ধের ডাক দেয়া হয়েছে।

এদিকে ‘বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিলকে’ কেন্দ্র করে বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেছে আসাম গণপরিষদ। সোমবার দিল্লি থেকে গুয়াহাটি ফিরে বিজেপির সঙ্গ ছাড়ার ঘোষণা দেন গণপরিষদ সভাপতি অতুল বরা।

দেশটির সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে আসামে নাগরিকদের যে তালিকা (এনআরসি) তৈরির কাজ চলছে তাতে প্রায় ৪০ লাখ আসামবাসীর নাম বাদ পড়েছে।

বিষয়টি নিয়ে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাঙালিদের উৎকণ্ঠার শেষ নেই। ১৯৭১ সালের নথি সংগ্রহ করতে না পেরে ১০ লক্ষাধিক মানুষ নতুন করে আবেদন করতে পারেননি।

Share Button