ক্রিড়া ডেস্ক:

ব্যালন ডি’অর মঞ্চে ইতিহাস সৃষ্টির দিনেই তৈরি হল বিতর্ক। এবার থেকে চালু হল মহিলা ফুটবলারদের ব্যালন ডি’অর পুরস্কার। প্রথমবার এই পুরস্কার জিতে নিয়েছেন অলিম্পিক লিওঁর নরওয়ের স্ট্রাইকার আদা হেগেরবার্গ। আর মঞ্চেই কিনা তিনি শিকার হলেন যৌন হেনস্থার!

গত মৌসুমে দুরন্ত ফুটবল খেলেছেন ২৩ বছর বয়সী এই তরুণী। লিঁও-র হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে গোল করে দলকে জেতান। শুরু তাই নয় ফরাসি লিগ জয়েও বড় ভূমিকা নেন তিনি। সোমবার প্যারিসে জমকালো অনুষ্ঠানে ফরাসি ডিজে মার্টিন সলভেইগ আদা হেগেরবার্গের থেকে পুরস্কার মঞ্চে জানতে চান যে, আপনি কি ‘টোয়ার্ক’ জানেন? এমন প্রশ্নে রীতিমতো বিতর্ক দানা বেঁধেছে।

জানা যায়, ‘টোয়ার্ক’ হল এক ধরনের হিপ-হপ ডান্স। জনপ্রিয় মিউজিকের সঙ্গে যৌন উত্তেজক ডান্সিং স্টান্ট। পুরস্কার মঞ্চে সঞ্চালকের এমন প্রস্তাবে একটু হলেও হতচকিত হয়ে যান তিনি। যদিও শুধু জানি না বলেই মঞ্চে ক্ষান্ত থাকেন হেগেরবার্গ।

পরে হেগেরবার্গ জানান, ‘তিনি কোনোদিন নিজেকে একজন পুরুষ ফুটবলারের থেকে আলাদা ভাবেননি। নিজের খেলাতেই বেশী মনযোগী। কিন্তু ওই ধরনের প্রশ্নে তিনি রীতিমতো বিব্রত।’

এই ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই ক্ষমা চেয়ে নেন স্বয়ং মার্টিন সলভেইগ। পাশাপাশি তিনি জানান, তিনি নারীকে কতটা সম্মান করেন গত ২০ বছর ধরে যারা তাকে চেনেন তারা তা জানেন।

Share Button