মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্ :
হাজীগঞ্জে পুলিশি বাধার মুখে ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে পূর্বঘোষিত বিএনপির আলোচনা সভা পন্ড হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে হাজীগঞ্জ পূর্ব বাজারস্থ বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

উপজেলা ও পৌর বিএনপির নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করে বলেন, সকল প্রস্ততি সম্পন্ন করার পর আলোচনা সভা শুরুর পূর্ব মূহুত্বে থানার সেকেন্ড অফিসার ইব্রাহিম খলিলের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন অফিসারসহ সঙ্গীয় ফোর্স সভাস্থলে আসেন। এ সময় তারা নেতৃবৃন্দের সাথে কথা বলে আলোচনা সভা বন্ধের নির্দেশ দেন। পরে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আকবর হোসেন মৃধা অনিবার্য কারণবশত সভা বাতিল করা হয়েছে বলে মাইকে ঘোষণা দেন। এরপর নেতাকর্মীরা চলে যান।

এ বিষয়ে উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ ড. মো. আলমগীর কবির পাটওয়ারী বলেন, এখানে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ উপেক্ষিত। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সভা-সমাবেশ ও মিছিল-মিটিং চলবে। তাহলে পুলিশ বিএনপির দলীয় কর্মসূচী পালনে বাধা এবং বন্ধ করে দিবে কেন ?

আলোচনা সভা বন্ধ করার অভিযোগ অস্বীকার করে থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন জানান, নাশকতার সৃষ্টির লক্ষ্যে তারা (বিএনপি ও অঙ্গসহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ) জমায়েত হয়েছিলো। তথ্য পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে, তারা পালিয়ে যায়।

Share Button