মোহাম্মদ হাবিবউল্যাহ্:॥
বঙ্গবন্ধু ছিলো জাতির স্বত্বা। ১৯৭১ সালের ১৫ আগষ্ট জাতি বঙ্গবন্ধুকে হারায়নি, সেদিন জাতি তার স্বত্বাকে হারিয়েছে। ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসে হাজীগঞ্জে আলোচনা সভা ও গাছের চারা বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এসব কথা বলেন, সরকারের বিদ্যুৎ খনিজ ও জ¦ালানি মন্ত্রনালয়ের বিদ্যুৎ বিভাগের মহাপরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ হোসাইন। উপজেলা চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আরো বলেন, আমরা হাজীগঞ্জবাসী পুরো দেশের কাছে আজো লজ্জিত কারণ জাতির জনকের খুনি রাশেদ চৌধুরীর বাড়ি হাজীগঞ্জের সোনাইমুড়ি গ্রামে। যেদিন এই খুনিকে বিদেশের মাটি থেকে ধরে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করা হবে সেদিন আমরা হাজীগঞ্জবাসী দায় মুক্তি পাবো।
বঙ্গবন্ধুকে হত্যার দিনের কথা মনে করে ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, ১৯৭১ সালের ১৫ আগষ্ট ছিলো শুক্রবার। সে সময় বোরবার থাকতো সরকারী ছুটি। যার কারনে শুক্রবারে আমরা বিদ্যালয়ে (হাজীগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ) এসে দেখি স্কুল বন্ধ। সেদিন সকালে আমরা বিষয়টি জানতাম না। আওয়ামী পরিবারের সন্তান হওয়ার কারনে দুপুরের মধ্যে জানতে পারি জাতির জনককে দেশীয় একটি কুচক্রিমহল সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। এটি ছিলো একটি আর্ন্তজাতিক চক্রান্ত।
উপজেলা কৃষকলীগের আয়োজনে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আব্দুর রশিদ মজুমদার। উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আবুল কালামের সভাপ্রধানে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, পৌর কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন খোকা। বক্তব্য রাখেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এবায়েদুর রহমান খোকন বলি, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা মো. ইকরাম হোসেন প্রমূখ।
উপজেলা তরুণ লীগের সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক সোহাগের উপস্থাপনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য শেষে কৃষক, শিক্ষার্থী ও দলীয় নেতৃবৃন্দের মাঝে চারা গাছ বিতরণ করা হয়। এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষক লীগ, তরুণ লীগসহ পৌর কৃষক লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Share Button