শরীফুল ইসলাম :
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও চাঁদপুর-৩ আসনের সাংসদ ডা. দীপু মনি বলেছেন, আগামী ১লা এপ্রিলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে কেন্দ্র করে চাঁদপুর শহরকে মিছিলে কানায় কানায় পরিপূর্ণ করতে হবে। যেন এক এপ্রিলের জনসভা জনসমুদ্রে রুপান্তরিত হয়। আমরা সবাই সেদিন আমাদের দল ও আমাদের নেত্রীর প্রতি আমাদের যে ভালবাসা তা সমাবেশের মাধ্যমে দেখিয়ে দিব যাতে সেদিনের জনসেবায় প্রমানিত হয় চাঁদপুরের মাটি শেখ হাসিনার ঘাটি। শেখ এমন একজন নেত্রী যিনি চাঁদপুর-হাইমচরবাসীকে চাওয়ার চেয়েও অনেক বেশি কিছু দিয়েছেন।

তিনি মঙ্গলবার বিকেলে চাঁদপুর সদর থানা আওয়ামী যুবলীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। সারা বিশ্বে আমরা প্রশংসিত হচ্ছি। এক সময় যারা আমাদের তলাবিহীন দেশ বলতো এখন তারাই বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি দেখে আমাদের কছে বুদ্ধি পরামর্শ চাচ্ছে। এমন এক সময় ছিল যখন দেশ দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হতো কিন্তু শেখ হাসিনার সরকারের সময় সারা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিত। শুধু দেশই নয় আমাদের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীও সারা বিশ্বের রাষ্ট্র প্রধানদের মধ্যে সততা ও নিষ্ঠায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। যা আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয়।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে নেত্রী বিভাগীয় শহরে প্রোগ্রাম করছেন। চাঁদপুরতো কোন বিভাগ নয়, জেলা শহর। কাজেই আগামী ১ এপ্রিল নেত্রী চাঁদপুর আগমন এটিও আমাদের জন্য একটি বড় প্রাপ্তি। চাঁদপুর সদর থানা যুবলীগ অত্যন্ত সুসংগঠিত। আমি আশা করি আগামী ১ এপ্রিল সদর থানা যুবলীগের প্রতিটি নেতাকর্মী দলের প্রতি এবং নেত্রীর প্রতি তাদের যে ভালবাসা ও শ্রদ্ধাবোধ তা প্রমান দিতে সক্ষম হবে।

চাঁদপুর সদর থানা যুবলীগের আহ্বায়ক হুমায়ুন কবির সুমনের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহ্বায় শিমুল হাছান সামনু ও তাজুল ইসলাম মিয়াজীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন – চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডাঃ জে.আর ওয়াদুদ টিপু, চাঁদপুর জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল, চাঁদপুর সদর উপজেলা যুবলীগের সদস্য মোস্তফা মোল্লা, মোরশেদ আলম মিয়া, আবুল হাছানাত নয়ন, মহসিন পলয়ান, মনির হোসেন ঢালী, ইকবাল হোসেন পলাশ, শাহাজালাল বন্দুকশী, সেলিম মাল, ফরিদ খান, ফারুক বেপারী, মোল্লা শাহাজাহান, রাসেল কাজী, জাহাঙ্গীর কবির কিশোর সহ বিভিন্ন ইউনিয়নের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Share Button