ক্রীড়া ডেস্কঃ

ফুটবলের রাজপুত্র লিওনেল মেসি বিয়ে করছেন। আগামী ৩০ জুন আর্জেন্টিনার রোজারিওতে তার ছোটোবেলার বান্ধবী আন্তোনেল্লা রোকুজ্জোকের সঙ্গেই গাঁটছড়া বাঁধছেন তিনি। শুধু নিজের শহর নয়, বার্সেলোনা ক্লাবেও বেশ ফুরফুরে মেজাজে রয়েছেন মেসি। তার বিয়েতে আমন্ত্রিত থাকবেন ক্লাব সতির্থ লুইস সুয়ারেজ, নেইমার, সেস ফ্যাব্রিগাস, জাভি হার্নান্দেজসহ গোটা বার্সেলোনার টিম। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

মেসির ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, ওই অনুষ্ঠানের উজ্জ্বলতম অতিথি হতে পারেন কলম্বিয়ার পপস্টার এবং মেসির সতীর্থ জেরার্ড পিকের বান্ধবী শাকিরা। তবে আমন্ত্রিত হলেও বিয়েতে শাকিরা যাবেন কি না সে প্রশ্ন থাকছেই।

মার্চে এক ব্রিটিশ দৈনিক জানিয়েছিল, মেসির বিয়ের আমন্ত্রণ পেলেও যাচ্ছেন না শাকিরা। কারণ শোনা যাচ্ছিল, পিকের সাবেক বান্ধবী নুরিয়া টমাসের সঙ্গে ভাল সম্পর্ক রয়েছে আন্তোনেল্লা। যেটা একদমই পছন্দ নয় শাকিরার। তবে এসব গুজব বলে উড়িয়ে দিয়ে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে শাকিরা বলেন, যদি সময় পাই, তাহলে অবশ্যই বিয়েতে যাব। কারণ, জেরার্ড এবং লিও ছোটোবেলার বন্ধু। মেসির বিয়েতে কতজন অতিথি থাকছেন, রোজারিওর কোন জায়গায় অনুষ্ঠান হবে, পার্টি কেমন হবে—এসব কিছু নিয়ে জোর জল্পনা চলছে ফুটবল মহল থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বিভিন্ন নিউজ ওয়েবসাইট সূত্রে খবর, প্রায় ৬০০ জন আমন্ত্রিত হতে পারেন বিয়ের অনুষ্ঠানে। তবে, রোজারিওর স্থানীয় সংবাদপত্র লা ক্যাপিটাল জানাচ্ছে, ২৫০ জনের বেশি অতিথি থাকার সম্ভাবনা কম। যার মধ্যে ২১ জন বার্সেলোনা প্লেয়ার। আন্তোনেল্লাকে সাজাতে আসছেন বিখ্যাত স্প্যানিশ ডিজাইনার রোসা ক্লারা। ২০ জন হেয়ার ড্রেসারকে ডাকা হয়েছে বলেও খবর।

২০০৮ সাল থেকে আন্তোনেল্লা রোকুজ্জোর সঙ্গে সম্পর্কে আসেন মেসি। তখন তার বয়স ছিল ২০ বছর। বছর খানেক তাদের সম্পর্ক গোপন থাকলেও পরে সেটা জানাজানি হয়ে যায়। মিডিয়ার কাছে লাজুক মেসি বলতে বাধ্য হলেন তাদের সম্পর্কের কথা। ২০১২ সালে প্রথম সন্তান থিয়াগোর জন্ম দেন তারা। দুই বছর আগে মাতেও নামে আরও একটি পুত্র সন্তান হয় তাদের।

Share Button