অন্যান্য

আলো স্বল্পতায় ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

আলো স্বল্পতার কারণে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাটের জঙ্গি আস্তানায় ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ স্থগিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম।

শুক্রবার সন্ধ্যায় সিলেট-মৌলভীবাজারের আঞ্চলিক মহাসড়কের বড়হাট এলাকায় ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা বলেন।

মনিরুল বলেন, ‘বড়হাট জঙ্গি আস্তানাটি অন্যান্য জঙ্গি আস্তানার থেকে জটিল। এর মধ্যে আলো স্বল্পতায় অভিযান স্থগিত করা হয়েছে। শনিবার আবহাওয়া ভালো থাকা সাপেক্ষ অভিযান পুনরায় শুরু করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে- এখানে বেশ কয়েকজন জঙ্গি আছে। কারণ ভবনটি দুইতলা এবং এর তৃতীয়তলা নির্মাণাধীন। এমন একটি ভবনে একাধিক জঙ্গি থাকতে পারে বলে আমাদের ধারণা।’

এর আগে বড়হাটের ওই জঙ্গি আস্তানা থেকে দুপুরে জঙ্গিদের ছোড়া বোমায় কয়সর নামের এক পুলিশ সদস্য আহত হন।

সকালে এক ব্রিফিংয়ে মনিরুল জানিয়েছিলেন, বড়হাটের আস্তানায় প্রচুর বিস্ফোরক রয়েছে। আর এর আশপাশে অনেক উঁচু ভবন রয়েছে। ফলে ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ শেষ হতে সময় লাগবে।

এদিকে, জঙ্গি আস্তানার পার্শ্ববর্তী সিলেট-মৌলভীবাজার আঞ্চলিক মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

শুক্রবার সাড়ে ৯টার দিকে ওই জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শুরু করে সোয়াত। এরপর থেকে ওই এলাকায় থেমে থেমে গুলির শব্দ পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার ভোর সাড়ে ৫টা থেকে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকার একটি দোতলা বাড়ি এবং সদর উপজেলার খলিলপুর ইউনিয়নের নাসিরপুরের একটি বাড়িতে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পায় আইনশৃংখলা বাহিনী।

বৃহস্পতিবার বিকালে মৌলভীবাজারের নাসিরপুরে জঙ্গি আস্তানায় সোয়াতের ‘অপরাশেন হিটব্যাক’ শেষ হয়। অভিযানে দুই নারী ও চার শিশুসহ সাতজন নিহত হয়।

Sharing is caring!

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares